মানবিক সাহায্যের আবেদন- টাকার অভাবে কিডনি প্রতিস্থাপন সম্ভব হচ্ছে না


আমি মেহেদী হাসান। পরিবারের একমাত্র ছেলে। আর সবার মত আমারো স্বপ্ন ছিল জীবনে বড় কিছু হবার, কিন্তু আমার এই  স্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে গেল।

সময়টা ২০১৪ সালের, তখন আমি ইন্টারমিডিয়েট ২য় বর্ষের ছাত্র। হঠাৎ করেই আমার শরীরে নানান ধরনের সমস্যা দেখা দেয়। পরে ডাক্তার দেখিয়ে বিভিন্ন পরীক্ষা  নিরীক্ষা করে জানতে পারি, আমার জন্ম থেকে একটা কিডনি নেই এবং  যে কিডটা আছে তা আকারে ছোট। এখন এই কিডনিও বিকল হয়ে

গেছে।

তখন থেকেই আমারর জীবনটা ভিন্ন দিকে মোড় নেয়। ডাক্তার বলেন  সুস্থ হতে হলে, কিডনি প্রতিস্থাপন করতে হবে। সাথে সাথে আমি  ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী সপ্তাহে দুইবার ডায়ালাইসিস চালিয়ে যাই।

কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য প্রচুর টাকার প্রয়োজন যা আমাদের মত  মধ্যবিত্ত পরিবারের জন্য অসম্ভব। তবুও তখন ২০১৫ সালে আত্মীয়  স্বজনের সহযোগীতায় ভারতে যাই কিডনি প্রতিস্থাপনের জন্য। কিন্তু

ভাগ্য আমার সুপ্রসন্ন ছিল না বলে হেপাটাইটিস সি ধরা পরায় কিডনি  প্রতিস্থাপন করাতে পারি নি। সেজন্য ভারত থেকে ফিরে আসতে হয়  আমাকে। তখন থেকে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী সপ্তাহে বার

ডায়ালাইসিস দিয়ে আসছি।

 

সে থেকে আজ বছর যাবত ডায়ালাইসিস দিয়ে দিয়ে বেঁচে  আছি।আমার এই চিকিৎসার ব্যায় ভার চালাতে গিয়ে আমার পরিবারের  অবস্থা নিঃস্ব প্রায়।

যার দরুন আমি আজ কয়েক মাস যাবত সঠিক মত ডায়ালাইসিস করতে  পারছি না, এমনকি ঔষধ এর ব্যাবস্থাও করতে পারছি না। যার ফলে  আমার শারীরিক অবস্থা দিন দিন অবনতির দিকে যাচ্ছে।

যেখানে ডাক্তার বলেছিলো সপ্তাহে দুইবার ডায়ালাইসিস করার জন্য  সেখানে আমি সপ্তাহে একবারও ডায়ালাইসিস করতে পারছি না। আমার  এই করুন অবস্থা দেখে আমার মাও পারছেন না কিছু করতে। আমার  এখন কেবল একটাই চাওয়া যে, আমি যেন সুস্থ-স্বাভাবিক অবস্থায়

আমার জীবনের বাকী দিনগুলো কাটিয়ে দিতে পারি 



আপনাদের একটু সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিন আমার ছেলের দিকে, একজন মায়ের আকুল আবেদন।

Rubina Ahkter
৫৮/১ হাছনা হাউজ কুয়ারপার, সিলেট।

৳ 120.00 raised of ৳ 1,500,000.00 Goal

0%
  • Only 0 Days Left
  • 3 Backers